জয়পুরহাটে ভুয়া ডাক্তারসহ ৭ প্রতারকের জেল

Vrammoman_Adalot_-300x1801.jpg

এ্যাজমা হাসপাতাল খুলে জেলার ক্ষেতলালে প্রতারণা করে চাকরি ও চিকিৎসাসেবার নামে অন্তত ১৫ লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার দায়ে সাত প্রতারককে এক বছর করে কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। ক্ষেতলাল উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল্লাহেল বাকী বৃহস্পতিবার বিকেলে এ রায় দেন। তারা হলেন, প্রতিষ্ঠানে চিকিৎসক পরিচয়দানকারী রাশেদা কবির, কর্মকর্তা নাসিমা আক্তার, রোখসানা বেগম, তহিদুল করিম, আইয়ুব হোসেন, সুলতান মাহমুদ ও মাসুদ রেজা। ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও ক্ষেতলাল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল্লাহেল বাকী জানান, এ্যাজমা ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান একরাম হোসেন নামের এক প্রতারক ক্ষেতলাল উপজেলার নিশ্চিন্তা বাজারে মাস্টার প্লাজায় একটি হাসপাতাল চালু করেন। সেখানে জেলার ৩২টি ইউনিয়ন ও ২৮৮টি ওয়ার্ডে চাকরি দেওয়ার নাম করে এলাকার নারী-পুরুষদের কাছ থেকে হাতিয়ে নেন অন্তত ১৫ লাখ টাকা। অভিযোগ পেয়ে জেলা সমাজসেবা অধিদফতরের কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে ও পুলিশের সহায়তায় ওই হাসপাতালে অভিযান চালানো হয়। এ সময় বৈধ কাগজপত্র না পেয়ে সাতজনকে এক বছর করে কারাদণ্ডের আদেশ দেন তিনি। এ সময় হাসপাতাল থেকে বেশ কিছু ওষুধ জব্দ করা হয় বলে জানান এ নির্বাহী কর্মকর্তা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *